Loading...

কলকাতাঃ লোকসভা ভোটের প্রস্তুতি শুরু করে দিল বঙ্গ বিজেপি। প্রতিটি লোকসভা কেন্দ্র ধরে ধরে রণকৌশল তৈরির লক্ষ্যে শনিবার বৈঠকের ডাক দিলেন দিলীপ ঘোষরা। ওই বৈঠকে রাজ্যের শীর্ষ নেতৃত্ব ছাড়াও থাকবেন জেলার সভাপতিরা ও ৪২টি আসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। উল্লেখ্য, চলতি সপ্তাহেই বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রী ও উপমুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহরা। ওই বৈঠকে লোকসভার জন্য টার্গেট বেঁধে দেওয়া হয়েছে বলে খবর।

বিজেপি সূত্রে খবর, ফেব্রুয়ারিতে বাজেট পেশ করবেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। তারপর ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করবে নির্বাচন কমিশন। মার্চ-এপ্রিলে গোটা দেশজুড়ে চলবে ভোটগ্রহণ। মে মাসে ফলঘোষণা। এরাজ্যে মার্চের শেষে দিক থেকে কয়েক দফায় ভোট হতে পারে বলে মনে করছেন দিলীপ-মুকুলরা। এই হিসাব ধরেই এগোতে চাইছে রাজ্যের গেরুয়া শিবির।

ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে রথযাত্রার মাধ্যমেই ভোটের মেগা প্রচার শুরু করে দেবে বিজেপি। গোবলয়ে ‘রথযাত্রা’র নজির ভুরি ভুরি। ক্ষমতা ধরে রাখতে গৌরবযাত্রায় বেরিয়েছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়া। কিন্তু বাংলায় রথযাত্রার সংস্কৃতি বেনজির। বিজেপি নেতৃত্বের আশা, পরিবর্তিত প্রেক্ষাপটে রথযাত্রা রাজ্যবাসীর মানসপটে প্রভাব ফেলতে সক্ষম হবে রথযাত্রা। তারপর ব্রিগেডে নরেন্দ্র মোদীর সভাও রয়েছে। ওই সভায় সমস্ত রেকর্ড ভেঙে জনসমাগম হবে বলে একপ্রকার নিশ্চিত বিজেপি নেতৃত্ব। শোনা যাচ্ছে, ভোটার তালিকা সংশোধন নিয়ে আলোচনা হতে পারে শনিবারের বৈঠকে। একইসঙ্গে জনসংযোগে জোর দেওয়ার কথাও বলবেন শীর্ষ নেতারা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নানা সামাজিক প্রকল্প ঘরে ঘরে প্রচারের নির্দেশ দেওয়া হতে পারে বলে খবর।

পশ্চিমবঙ্গে লোকসভার ভোটে ২২টি আসন জেতার টার্গেট স্থির করে দিয়েছেন অমিত শাহ। চলতি মাসেই যুব মোর্চার সভায় ফের একবার সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। তাতে রাজ্য নেতৃত্বের উপরে চাপ আরও বেড়েছে। আর যাই হোক ২২টি আসন জেতার লক্ষ্য বেশ কঠিনই। তার কাছাকাছি থাকতে পারলেও আত্মবিশ্বাস পাবেন কর্মীরা। ২০২১ সালের আগে রাজ্যবাসীকে বার্তা দিতে পারবেন বিজেপি নেতারা। কিন্তু বিজেপিকে সহজে জমি ছেড়ে দেবে না তৃণমূলও। ২১ শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকে ৪২টি আসন জেতার টার্গেট দলকে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লোকসভার প্রস্তুতিতে ইতিমধ্যেই নেমে পড়েছে তৃণমূল। পুজোর পর আরও জোরকদমে শুরু হবে প্রচার।

রাজনৈতিক মহলের মতে, ২০২১ সালে ক্ষমতা দখল করতে চাইলে ২০১৯ সালে রাজ্যে ভাল করতে হবে বিজেপিকে। আর তা ভালমতোই জানেন তৃণমূল নেত্রী। বিজেপিকে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়বেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।ফলে কঠিন চ্যালেঞ্জ জিততে বিজেপির রণকৌশলের উপরে অনেক কিছুই নির্ভর করবে।

Loading...