Loading...

বেঙ্গালুরু: কর্নাটকে কংগ্রেস-জেডিএস জোট সরকারে অসন্তোষের কালো ছায়া আরও দীর্ঘায়িত হল। খোদ মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী বলেছেন, তিনি ক্ষমতায় আছেন ঠিকই কিন্তু এ জন্য নীলকণ্ঠর মত বিষপান করতে হচ্ছে। কুমারস্বামীর কথায়, তিনি জানেন, তিনি মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন বলে রাজ্যবাসী খুশি। কিন্তু তিনি নিজে খুশি নন। ভগবান বিশ্বনাথের মত বিষপান করতে বাধ্য হচ্ছেন তিনি। বলতে বলতে কেঁদে ফেলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী।

বেঙ্গালুরুতে তাঁর দল জেডিএসের এক সভায় বক্তৃতা দিচ্ছিলেন কুমারস্বামী। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, এ কথা সত্যি যে ভোটের আগে তিনি মুখ্যমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন, এ জন্য বেশ কিছু প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পরেও তিনি অসুখী। চাইলে এই পদ ছেড়ে দিতে পারেন। যেখানে যান, সেখানেই জনতা তাঁকে কৃষিঋণ মকুব করার জন্য ধন্যবাদ জানায়। কিন্তু এত ভালবাসা সত্ত্বেও পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা মানুষ জেডিএসকে দেয়নি।

কর্নাটক বিধানসভা ভোটে কোনও দল পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। কিন্তু একক বৃহত্তম দল বিজেপিকে ঠেকাতে কংগ্রেস-জেডিএস ভোটের ফল বার হওয়ার পর জোট বেঁধে সরকারে আসে। কংগ্রেস বেশি আসন পেলেও জেডিএসকে মুখ্যমন্ত্রীর আসন গ্রহণের প্রস্তাব দেয় তারা।

কিন্তু এরপর থেকেই দফতর বাঁটোয়ারা, কৃষিঋণ মকুব, পেট্রোল-ডিজেলের দামের মত বেশ কিছু ইস্যুতে জেডিএস-কংগ্রেস দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসে পড়েছে। অশান্তি মেটাতে কুমারস্বামীর সঙ্গে বেশ কয়েকবার বৈঠকও করেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাঁধী। কিন্তু তাতেও যে ঝামেলা মেটেনি, তা কুমারস্বামীর মন্তব্যেই পরিষ্কার।

Loading...